দাঁত ও মাড়ি সুস্থ রাখুন‚ না হলে তার প্রভাব পড়তে পারে মস্তিষ্কে

Lorem ipsum dolor sit amet, consectetur adipiscing elit. Ut elit tellus, luctus nec ullamcorper mattis, pulvinar dapibus leo.

সুন্দর হাসির জয় সর্বত্র। আর সুন্দর হাসির জন্য চাই ঝকঝকে সুস্থ দাঁত। ভাল দাঁত থাকলে মানুষ নানা সুস্বাদু খাবার খেতে পারেন, আনন্দে দিন কাটাতে পারেন এবং আত্মবিশ্বাসী থাকতে পারেন। তাছাড়া দাঁত সরাসররিভাবে প্রভাব ফেলতে পারে মানুষের শরীরের অন্যান্য অংশের উপরে।

সম্প্রতি গবেষকরা জানিয়েছেন মুখের স্বাস্থ্যের সঙ্গে মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতারও যোগ আছে| তাঁদের মতে মাড়ির অসুখ এবং দাঁত পড়ে যাওয়ার সঙ্গে স্ট্রোকের যোগাযোগ আছে| জার্নাল অফ ইন্ডিয়ান পেরিডেন্টোলজি-তে প্রকাশিত রিপোর্ট অনুয়াযী যাঁদের মুখের স্বাস্থ্য ভাল নয়‚ তাঁদের হৃদযন্ত্র সংক্রান্ত অসুখ হওয়ার সম্ভবণা ২০ % বেড়ে যায়| তবে এই বিষয়ে আরও গবেষণা করার প্রযোজন আছে|

সম্প্রতি নিউ জিল্যান্ডের রুটগরস ইউনিভার্সিটির গবেষকরা জানিয়েছেন মুখের স্বাস্থ্য খারাপ হলে মানুষের চিন্তা করার ক্ষমতা বা মনে রাখার ক্ষমতা ধীরে ধীরে কমতে থাকে| একই সঙ্গে তাঁরা জানিয়েছেন যাঁরা মানসিক অবসাদে ভুগছেন তাঁদের মুখের স্বাস্থ্যের দ্রুত অবনতি ঘটে|

গবেষকদের মতে অল্প বয়স থেকেই দাঁত ও মাড়ির সঠিক খেয়াল রাখা উচিত| আসুন দেখে নিন কী করে দাঁত ও মাড়ি সুস্থ রাখবেন:

# দিনে দু’বার ব্রাশ করাটা অত্যন্ত জরুরি|

# সামনে পেছনে ব্রাশ না করে ওপর নীচে এবং নিচ থেকে ওপরে ব্রাশ করুন|

# সারাদিনে অন্তত ৩-৪বার হাল্কা গরম জলে কুলকুচি করুন|

# খাওয়ার পর ভাল করে কুলকুচি করে মুখ ধুয়ে নিন|

# রাতে শোওয়ার আগে ব্রাশ করাটা জরুরি| কিন্তু যদি রাতে ব্রাশ করার সময় না থাকে তাহলে মাউথওয়াশ দিয়ে কুলকুচি করে মুখ ধুতে হবে| এর পর আর কিছু খাওয়া চলবে না|

# বছরে অন্তত দু’বার ডেনটিস্টের পরামর্শ নিন|

# পান‚ দোক্তা‚ গুটখা সম্পূর্ণভাবে এড়িয়ে চলুন|

# ধূমপান ও মদ্যপান দাঁতের ক্ষতি করে|

# কোনও রকম সমস্যা দেখা দিলে সঙ্গে সঙ্গে ডেনটিস্টের পরামর্শ নিন|

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *